বাংলাদেশ ০৩:৩৭ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০২৪, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ইলিশ মাছ রান্না না করায়’ মাকে কুপিয়ে হত্যা করলো ছেলে

  • আপডেট সময় : ০৮:০১:৫৩ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৮ মার্চ ২০২৪
  • / 27

 

ভোলার বোরহানউদ্দিনে মাকে কুপিয়ে হত্যা করেছে ছেলে। এ ঘটনায় নিহতের ছেলে মো. রাহাদ হোসেনকে (২৮) আটক করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন জাহানারা বেগম নামে প্রতিবেশী এক মহিলা। তাকে বরিশাল শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

সোমবার (২৬ মার্চ) রাত ৯টার দিকে বোরহানউদ্দিনে জয়া গ্রামের হাওলাদার বাড়িতে নির্মম ঘটনা ঘটে। নিহত নাসিমা বেগম (৫৫) ওই গ্রামের মো. দুলাল হাওলাদারের স্ত্রী,আহত জাহানারা বেগম একই গ্রামের নাজু মৃধার স্ত্রী।

বোরহানউদ্দিন থানার অফিসার্স ইনচার্জ (ওসি) শাহীন ফকির গণমাধ্যমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

প্রত্যক্ষদর্শীদের বরাত দিয়ে ওসি জানান, খুনি রাহাদ হোসেনের স্ত্রী ও বাবা ঢাকায় থাকেন। সোমবার সন্ধ্যায় ইফতারের পর রাহাত তাঁর মাকে ইলিশ মাছ রান্না করতে বলে। তার মা জানায়, বাড়িতে কেউ নেই, তিনি একা সংসারের অন্যান্য কাজ শেষ করে মাছ রান্না করতে পারবে না। এরপরও রাহাত তার মাকে ইলিশ মাছ রান্না করতে বারবার অনুরোধ করে। এরই মধ্যে মায়ের সঙ্গে মাছ রান্না নিয়ে রাহাতের মনোমালিন্য ও হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। একপর্যায়ে রাহাত দা দিয়ে তার মাকে নির্মমভাবে কুপিয়ে হত্যা করে লাশের পাশে বসে থাকে। জাহানারা নামে প্রতিবেশী আহত ওই নারী রাহাতকে বাধা দিলে তাকেও কুপিয়ে জখম করে সে। বর্তমানে ওই নারীকে বরিশাল শেরেবাংলা (শেবাচিম) মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। তাঁর অবস্থাও আশঙ্কাজনক।

ওসি আরও জানান, ঘটনাটি খুবই মর্মান্তিক। স্থানীয়দের কাছ থেকে পুলিশ জানতে পেরেছে, রাহাত কিছুটা মানসিক ভারসাম্যহীন। সে পুলিশের কাছে ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছে। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ঘাতক ছেলেকে আটক করেছে, হত্যায় ব্যবহৃত দাঁ উদ্ধার করা হয়েছে। এছাড়া নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য থানায় নিয়ে আসা হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য
ট্যাগস :

ইলিশ মাছ রান্না না করায়’ মাকে কুপিয়ে হত্যা করলো ছেলে

আপডেট সময় : ০৮:০১:৫৩ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৮ মার্চ ২০২৪

 

ভোলার বোরহানউদ্দিনে মাকে কুপিয়ে হত্যা করেছে ছেলে। এ ঘটনায় নিহতের ছেলে মো. রাহাদ হোসেনকে (২৮) আটক করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন জাহানারা বেগম নামে প্রতিবেশী এক মহিলা। তাকে বরিশাল শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

সোমবার (২৬ মার্চ) রাত ৯টার দিকে বোরহানউদ্দিনে জয়া গ্রামের হাওলাদার বাড়িতে নির্মম ঘটনা ঘটে। নিহত নাসিমা বেগম (৫৫) ওই গ্রামের মো. দুলাল হাওলাদারের স্ত্রী,আহত জাহানারা বেগম একই গ্রামের নাজু মৃধার স্ত্রী।

বোরহানউদ্দিন থানার অফিসার্স ইনচার্জ (ওসি) শাহীন ফকির গণমাধ্যমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

প্রত্যক্ষদর্শীদের বরাত দিয়ে ওসি জানান, খুনি রাহাদ হোসেনের স্ত্রী ও বাবা ঢাকায় থাকেন। সোমবার সন্ধ্যায় ইফতারের পর রাহাত তাঁর মাকে ইলিশ মাছ রান্না করতে বলে। তার মা জানায়, বাড়িতে কেউ নেই, তিনি একা সংসারের অন্যান্য কাজ শেষ করে মাছ রান্না করতে পারবে না। এরপরও রাহাত তার মাকে ইলিশ মাছ রান্না করতে বারবার অনুরোধ করে। এরই মধ্যে মায়ের সঙ্গে মাছ রান্না নিয়ে রাহাতের মনোমালিন্য ও হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। একপর্যায়ে রাহাত দা দিয়ে তার মাকে নির্মমভাবে কুপিয়ে হত্যা করে লাশের পাশে বসে থাকে। জাহানারা নামে প্রতিবেশী আহত ওই নারী রাহাতকে বাধা দিলে তাকেও কুপিয়ে জখম করে সে। বর্তমানে ওই নারীকে বরিশাল শেরেবাংলা (শেবাচিম) মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। তাঁর অবস্থাও আশঙ্কাজনক।

ওসি আরও জানান, ঘটনাটি খুবই মর্মান্তিক। স্থানীয়দের কাছ থেকে পুলিশ জানতে পেরেছে, রাহাত কিছুটা মানসিক ভারসাম্যহীন। সে পুলিশের কাছে ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছে। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ঘাতক ছেলেকে আটক করেছে, হত্যায় ব্যবহৃত দাঁ উদ্ধার করা হয়েছে। এছাড়া নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য থানায় নিয়ে আসা হয়েছে।